এবার চাল চোর চক্রের ধর্মের মারপ্যাঁচে সাংবাদিক সাগর চৌধুরী!

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:৩৩ অপরাহ্ণ, ০৫ মে ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: গত এপ্রিলের প্রথম দিকে চাল চুরির খবর প্রকাশ করায় সাংবাদিক সাগর চৌধুরীর উপরে মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে নির্যাতন করা হয়। যা সারাদেশব্যাপী আলোড়ন সৃষ্টি করে। সারাদেশের গণমাধ্যমকর্মীদের দাবিতে শেষ পর্যন্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আটক করেছিল সাংবাদিক নির্যাতনকারী ছাত্রলীগ কর্মী নাবিল কে। স্থানীয় পর্যায়ে নাবিলের পরিবার রাজনৈতিক শক্তিশালী হাওয়ায় ওই ঘটনার পর থেকে সাংবাদিক সাগর চৌধুরীকে বিভিন্ন রকম ঘটনায় ফাঁসানোর চেষ্টা চলে আসছিল। তারই ধারাবাহিকতায় এবার ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার মারপ্যাঁচে ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে সাংবাদিক সাগর চৌধুরীকে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাতের আধারে একদল উশৃংখল যুবক সাগরের বিরুদ্ধে মিছিল করে। মিছিলের সাগর চৌধুরী ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে বলে তার বিচার চেয়ে বিভিন্ন কুরুচিপূর্ণ স্লোগান দেয়া হয়। এসব মিছিলের ভিডিও ধারণ করে বেশ কিছু ফেক ফেসবুক একাউন্টের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। এমনই বেশ কয়েকটি ভিডিওতে লক্ষ্য করে দেখা গেছে স্থানীয় মসজিদের মোয়াজ্জেম কে শিখিয়ে দিয়ে মসজিদের ভেতর রাতের আধারে একটি ভিডিও ধারণ করা হয়। যেই ভিডিও ধারণ ব্যক্তি আগেই মহসিনক বিভিন্নভাবে শিখিয়ে দিচ্ছেন স্পষ্ট দেখা গেছে। সাগর চৌধুরীর বিরুদ্ধে এমন কুরুচিপূর্ণ অপবাদ ছড়ানোর কোন প্রকার প্রমাণ খুঁজে পাওয়া যায়নি।এসব বিষয়ে সাগর চৌধুরীর কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান সারা দেশবাসী আমার উপর অমানবিক নির্যাতনের খবর জেনেছেন আমি হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়িতে আসার পর থেকে চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন হাওলাদারের ছেলে নাবিলকে পুলিশ গ্রেফর করার পর আমাকে বিভিন্নভাবে ফাঁসানোর চেষ্টা চলে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় এটিও একটি। এসমস্ত মিথ্যে বিভ্রান্তমূলকউদ্দেশ্যপ্রণোদিত অপপ্রচারের বিরুদ্ধে সাংবাদিক সাগর চৌধুরী একটি ভিডিও বার্তা ও তার বক্তব্য প্রচার করেছেন যা হুবহু পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো…….

~ধর্মপ্রান মুসলমানের বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্যের নিন্দা ও প্রতিবাদ – সাগর চৌধুরীবি

মাধ্যমে আমার নামে কতিপয় লোক কুরুচিপূর্ণ এবং মুসলমানদের পবিত্র ধর্মীয় অনুভূতি নিয়ে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দেয়, যা দেখে আমি খুবই কষ্ট পাই। মুসলমান বাবা মায়ের সন্তান হিসেবে এবং আমি মুসলমান হিসেবে পবিত্র মাহে রমজানে নামাজ পড়ি, রোজা রাখি, এবং ধর্মীয় অনুশাসন গুলো মেনে চলি। এই রমজান মাসে যারা আমার নামে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য বিভিন্ন মাধ্যমে প্রচার করছে এবং আমার বাসায় এসে আমার বৃদ্ধ বাবা-মাকে হত্যার হুমকি ও আমাকে হত্যার হুমকি দিয়ে গেছেন, মহান আল্লাহতালা তাদের বিচার করবেন। পবিত্র রমজান মাসে আমি রোজাদার ব্যক্তি হিসেবে সকল ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের কাছে অনুরোধ করবো। কতিপয় কুরুচিপূর্ণ মানুষের কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য পরিহার করুন। আপনারা জানেন বিগত কয়েক দিন আগে আমার উপর শারিরক ও মানুষিক নির্যাতন করা হয়েছে। সেই ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য তাদের এমন হিন প্রচেষ্টা অব্যহত আছে।

সাগর চৌধুরীনির্যাতিত সাংবাদিক।

আপনার মতামত লিখুন :