• ১৬ই এপ্রিল ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

স্বেচ্ছাসেবক লীগের শীর্ষ পদে আলোচনায় যারা 

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত নভেম্বর ৫, ২০১৯, ১১:১১ পূর্বাহ্ণ
স্বেচ্ছাসেবক লীগের শীর্ষ পদে আলোচনায় যারা 

রাজনৈতিক প্রতিবেদক;   

আগামী ১৬ নভেম্বর’১৯ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের তৃতীয় জাতীয় সম্মেলন। সম্মেলনে কাউন্সিলের মাধ্যমে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হবে। গুরুত্বপূর্ণ পদে ক্লিন ইমেজের নেতাদের খোজা হচ্ছে। আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা গোয়েন্দা সংস্থার মাধ্যমে ক্নিন ইমেজ নেতাদের তালিকা ইতিমধ্যেই সংগ্রহ করেছেন।রাজনীতিতে যারা সৎ সাহসী ও মুজিব আদর্শের খাঁটি সৈনিক তাদের কদর বেড়েছে । হাইব্রিড বা অনুপ্রবেশকারীদের স্থান নেই বলে দলীয় হাই কমান্ড বার বার উচ্চারন করেছেন। সাবেক ছাত্রলীগ নেতা যারা বর্তমানে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় রাজনীতির সাথে আছেন তাদের অভিজ্ঞতা ও ছাত্রলীগের সাবেক নেতাদের সমন্বয় নতুন আঙ্গীকে স্বেচ্ছাসেবক লীগকে সাজানো হবে বলে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সমন্বয়কারী অাওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক কৃষিবিদ অাফম বাহাউদ্দীন নাছিম সাংবাদিকদের সাথে অালাপ কালে এ তথ্য দিয়েছেন। নতুন পুরান ক্লিন ইমেজের নেতাদের মূল্যায়নের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। ক্লিন ইমেজ হিসেবে সভাপতি পদে যাদের নাম আলোচনায় রয়েছে তারা হলেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের জাতীয় সম্মেলন প্রস্ততি কমিটির আহবায়ক নির্মল রঞ্জন গুহ, সদস্য সচিব গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু, অাফজাল বাবু,মতিউর রহমান মতি, মুজিবুর রহমানের স্বপন, নির্মল রঞ্জন চ্যাটার্জী। সাধারণ সম্পাদক পদে যাদের নাম আলোচনা রয়েছে তারা হলেনঃ একেএম আজীম,সাজ্জাদ সাকিব বাদশা, খায়রুল হাসান জুয়েল, সোহেল রানা টিপু, আব্দুল আলিম, ওবায়দুল হক খান, ফিরোজ হোসাইন নাফিউল করিম নাফা, রফিকুল ইসলাম বিটু, আব্দুল্লাহ আল সায়েম প্রমুখ।সম্প্রতি ক্যাসিনোসহ টেন্ডারবাজী, চাঁদাবাজী, দলবাজী, দখলবাজী বিভিন্ন অপকর্মের সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করে যুবলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শুদ্ধি অভিযানের অংশ হিসেবে মেয়াদ উত্তর্ন যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ ও শ্রমিক লীগের জাতীয় সম্মেলন করার নির্দেশ দিয়েছেন । বিতর্কিত লোকদের দল থেকে বের করে,ক্লিন ইমেজের নেতাদের সমন্বয়ে সংগঠন গুলো গঠনের উদ্যোগ নিয়েছেন শেখ হাসিনা।ক্যাসিনো কেলেঙ্কারির অভিযোগে ইতোমধ্যে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি মোল্লা মোঃ আবু কাওছারকে সংগঠন থেকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে। সেই সাথে সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেবনাথ এমপিকে সম্মেলনের সকাল কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।স্বেচ্ছাসেবক লীগের দুই শীর্ষ নেতার অনুপস্থিতিতে সংগঠনটির সম্মেলনে কোন প্রভাব পরছে না বলে স্বেচ্ছাসেবক লীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সম্মেলন প্রস্ততি কমিটির অাহবায়ক নির্মল রঞ্জন গুহ ও সদস্য সচিব মেজবাউল হোসেন সাচ্চু জানান। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ অাওয়ামী লীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাথে বৈঠকে অাওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ২/১ জন বিতর্কিত লোকের দায়ভার দল নেবে না। দলে ভাইয়ের রাজনীতি শেষ। অনুপ্রেবেশকারী, বিতর্কিত, টেন্ডারবাজ, দলবাজ, ভূমিদস্যুতাদের স্থান আওয়মীলীগে নেই। আওয়ামীলীগ সহ সকল সহযোগী সংগঠনে ক্লিন ইমেজের লোকেরাই অাসবে। স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২/১ টি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া সংগঠনের নেতা কর্মীরা সুশৃঙ্খল ও দলের প্রতি অাস্থাসিল। তিনি বলেন, নির্মল রঞ্জন গুহ জাতীয় সম্মেলন প্রস্ততি কমিটির অাহবায়ক এবং সে সম্মেলনে সভাপতিত্বে করবেন নির্মল রঞ্জন গুহ। ওবায়দুল কাদের বলেন, ভবিষ্যতে পুরানো, নতুনের সমন্বয় দলের প্রতি আনুগত সৎ ক্লিন ইমেজ নেতাদের দিয়েই কমিটি গঠন করা হবে। দলের দুঃসময়ে নেতা কর্মীদের মুল্যায়ন করা সময় এসেছে। গতকাল কৃষিবিদ বাহাউদ্দীন নাছিম স্পষ্টতো বলেছেন, ২/১জন লোকের অপকর্মের দ্বায়িত্ব দল নিবে না। যারা অপকর্ম করেছে, তাদের শাস্তি পেতে হবে।দলের মধ্যে ব্যক্তি পুজা বন্ধ করতে হবে। দল কোন ব্যক্তির ইচ্ছোয় চলবে না। দল চলবে দলেন আদর্শে।আজ স্বেচ্ছাসেবক লীগের ১৩ টি উপ কমিটি পুনাঙ্গ করা হয়েছে। উপ কমিটির মধ্যে কাজ ভাগ করে দেওয়া হয়েছে।স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন প্রস্ততি কমিটির নেতৃবৃন্দ প্রধান মন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করে সম্মেলনের সার্বিক প্রস্ততি সম্পর্কে অবহিত করেন। চূড়ান্ত করবেন।সম্মেলন প্রস্ততি কমিটি ও ১৩ উপ কমিটি সার্বাক্ষনিক কাজ করে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে প্রচার উপ কমিটি সারা দেশে পোস্টার বিলিবন্টন করেছেন।দপ্তর উপ কমিটি সব কিছু মনিটর করছেন। দফায় দফায় সভা করেছেন উপ কমিটি সমুহ। আহবায়ক নির্মল রঞ্জন গুহ ও সদস্য সচিব মেজবাউল হোসেন সাচ্চু দিন রাত ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন।