• ১৭ই এপ্রিল ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৪ঠা বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় জাভেদ ইকবাল

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত নভেম্বর ১, ২০১৯, ১৭:০৯ অপরাহ্ণ
মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় জাভেদ ইকবাল

এইচ আর শফিকঃ

দীর্ঘ সময় অপেক্ষা শেষে আগামী ১১ ও ১২ নভেম্বর আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠন স্বেচ্ছাসেবক লীগের মহানগর দক্ষিণ ও উত্তরের সম্মেলন অনুুুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ নিয়ে পদপ্রত্যাশী নেতাদের প্রচার প্রচারণা আলোচনা সমালোচনা সব মিলিয়ে রুপ নিয়েছে এক উৎসবের। আর এই সম্মেলন পরিচালনায় গঠিত হয়েছে আহবায়ক কমিটি।

পদ প্রত্যাশী নেতাদের আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয় এবং বঙ্গবন্ধু এভিনিউ স্বেচ্ছাসেবক লীগ কার্যালয়ে প্রতিদিন উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। কথা বলছেন দলের একাধিক সিনিয়র নেতাদের সাথে পাশাপাশি প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রক্ষা করছেন সকল নেতাকর্মীদের সাথে।

দলের একটি বিশস্ত সূত্র জানিয়েছেন, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদস্য এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক এবং হাবিবুল্লাহ বাহার কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাভেদ ইকবাল।

সকালের সংবাদের সাথে একান্ত আলোচনায় সাবেক তুখোড় ছাত্রনেতা জাভেদ ইকবাল বলেন, দলের সকল অঙ্গসংগঠনের নেতাদের দুর্নীতির কারনে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট অনেক হয়েছে এবার প্রিয় নেত্রী, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সৎ নিষ্ঠাবান ও ত্যগীদের দলে ঠাঁই পাওয়ার সুযোগ করবেন। সে হিসেবে দল আমাকে যোগ্য মনে করে দ্বায়িত্ব দিলে আমি দলকে সুশৃঙ্খল করে সৎ ও নিষ্ঠারসাথে পরিচালনায় কাজ করে যাবো ইনশাআল্লাহ।

উল্লেখ্য, সম্মেলন ছাড়াই চলছে দীর্ঘ ১৩ বছর। ২০১২ সালের স্বেচ্ছাসেবক লীগের জাতীয় সম্মেলনে মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ কমিটির ১০১ সদস্য বিশিষ্ট করার প্রস্তাব পাস করা হয় কিন্তু ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি দিয়েই চলছে সংগঠন। এই দীর্ঘ সময় সম্মেলন না হওয়ায় দলের পদপ্রত্যাশী অসংখ্য ত্যগী নেতারা কমিটির বাইরে ছিলো।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি পদে আলোচনায় রয়েছেন বর্তমান কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তারেক সাইদ, আরেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ হাওলাদার, সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান ইরান। এছাড়াও আলোচনায় আছেন এক সময়ের আলোচিত ছাত্রনেতা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কামরুল হাসান রিপন।

সাধারণ সম্পাদক আলোচনায় আরও রয়েছেন মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আনিসুর রহমান আনিস এবং সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ আনিসুজ্জামান রানা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক ওমর ফারুক।