মাকে ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচাতে ধর্ষককে খুন করলো ছেলে!

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:২৬ অপরাহ্ণ, ২৮ মে ২০১৯

জেলা প্রতিনিধি;

পাবনার ঈশ্বরদীতে মায়ের ইজ্জত বাঁচাতে বখাটে যুবককে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। পরে লাশটি গুম করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে পুলিশের হাতে ধরা পরে ঐ মা ছেলে। ঘটনার বিষয়ে জানা যায়, গত ২৫ মে উপজেলার চকনারিচা বাগবাড়িয়া এলাকা থেকে সাকিব (২১) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় ঈশ্বরদী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। এরপর সোমবার ২৭ মে ভোরবেলায় পুলিশের অভিযানে অরনকোলা এলাকা থেকে গ্রেফতার হয় চকনারিচা বাগবাড়ীয়া গ্রামের মিলন আলীর স্ত্রী বিলকিছ আক্তার বানু (৩৮) ও তার ছেলে বিল্পব হোসেন (১৮)।

পরে জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দিয়েছে বলেও জানায় পুলিশ। স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীতে জানা গেছে, নিহত সাকিব সুযোগ পেলেই তার আপন মামী বিলকিছ আক্তার বানুকে অনৈতিক কাজের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এরই সূত্র ধরে সবার অগোচরে গত ২৫মে রাতে সাকিব তার মামীর ঘরে প্রবেশ করে।

এ সময় সাকিব তার মামীকে কু প্রস্তাব দিলে সে রাজী না হলে তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয়। এক পর্যায়ে বিলকিছ আক্তার বানু তার ছেলে বিপ্লবকে চিৎকার করে ডাকতে থাকে। পাশের ঘর থেকে ডাক শুনে বিপ্লব আরো ৪/৫ জনকে ডেকে নিয়ে আসে।পরে তারা সবাই মিলে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে সাকিবকে হত্যা করে পাশের একটি বাগানে উলঙ্গ অবস্থায় ফেলে পালিয়ে যায়।

এ মামলার অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আপনার মতামত লিখুন :