টঙ্গীতে পুলিশের ভয়ে নদীতে ঝাঁপ, যুবকের মৃত্যু

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:২৯ অপরাহ্ণ, ১৭ মে ২০১৯

টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি;

টঙ্গীতে পুলিশের ভয়ে তুরাগে লাফ দেওয়া লিটন (৪০) নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে টঙ্গী নদীবন্দর এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ।

লিটন উত্তরখান চামুরখান এলাকার একটি কারখানায় সহকারী হিসেবে চাকরি করত। উদ্ধারের পর তার শরীরে স্কচটেপ দিয়ে পেঁচানো অবস্থায় গাঁজা পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এলাকাবাসী জানায়, বৃহস্পতিবার সকালে তুরাগ নদের পাশে একটি দোকানে বসেছিল লিটন। এ সময় উত্তরখান থানা পুলিশকে দেখে সে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। সন্দেহ হওয়ায় পুলিশও তার পিছু নেয়। পরে পুলিশের হাত থেকে বাঁচার জন্য তুরাগ নদে ঝাঁপ দেয় লিটন।

এ ব্যাপারে উত্তরখান থানার ওসি মো. হেলাল উদ্দিন জানান, এলাকাবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে স্থানীয় ডুবুরি ও ফায়ার সার্ভিসের সাহায্য নিয়ে অনেক খোঁজার পরও তাকে পাওয়া যায়নি।

টঙ্গী পূর্ব থানার এসআই মো. রাজীব হোসেন বলেন, শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে টঙ্গী নদী বন্দর এলাকায় লাশ ভাসতে দেখে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। নিহত লিটনের স্বজনরা তার পরিচয় শনাক্ত করেছে।

টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি মো. কামাল হোসেন জানান, নিহতের পায়ে স্কচটেপ দিয়ে পেঁচানো অবস্থায় গাঁজা পাওয়া গেছে। পুলিশের ভয়ে নদীতে ঝাঁপ দিয়েছে কি-না, সঠিক করে বলা যাচ্ছে না। ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :