ফেনীতে গৃহবধূর আত্মহত্যা

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:৫৬ অপরাহ্ণ, ২৩ মে ২০২০

ফেনী প্রতিনিধি;
ফেনীর দাগনভূঞায় শ্বশুর-শাশুড়ির চরম মানসিক অত্যাচার, নির্যাতন সইতে না পেরে ইয়াছমিন আক্তার পিনু নামে এক গৃহবধূ ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে।

উপজেলার মোমারিজপুর গ্রামের হৈদের পুকুর এলাকার মিয়ান কাজী বাড়িতে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহত ইয়াছমিন আক্তার পিনু (২১) সোনাগাজী উপজেলার চরচান্দিয়া গ্রামের জয়নাল আবদীনের মেয়ে। নিহত পিনুর ভাই আনোয়ার হোসেন জানান, গেল বছর মোমারিজপুর গ্রামের মিয়ান কাজী বাড়ির গোলাম আযমের মেজো ছেলে কাতার প্রবাসী গোলাম সরোয়ার রাহুলের সঙ্গে পিনুর বিয়ে হয়। তাদের ছয় মাস বয়সী একটি কন্যা সন্তান রয়েছে ।

তার অভিযোগ প্রবাস থেকে তার ভগ্নিপতি রাহুল, বাড়িতে তার শ্বশুর ও শাশুড়ি পিনুকে চরম মানসিক নির্যাতন করে আসছে। গতকাল শুক্রবার ২২ মে বিকেলে সর্বশেষ তার বোন তাকে ফোন করে জানায়, শ্বশুর শাশুড়ির অত্যাচারে তার দম বন্ধ হয়ে আসছে। ওরা তাকে বাঁচতে দিবে না। তাকে সে বাড়ি থেকে মুক্তি দেয়ারও আকুতি জানান পিনু। অত্যাচারী স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ির অত্যাচার থেকে মুক্তি চেয়েও মুক্তি মেলেনি পিনুর।

দাগনভূঞা থানার এস আই জহির জানান, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :