শ্রমিকলীগ নেতার মাদক ব্যবসার সংবাদ প্রকাশ করায় সম্পাদককে মামলার হুমকি!

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৮:৩১ অপরাহ্ণ, ১০ নভেম্বর ২০১৯

চাঁদাবাজ ও মাদক ব্যবসায়ীর খিলগাঁওয়ের শ্রমিকলীগ লীগ নেতা নুর মোহাম্মদদের অপকর্মের সংবাদ প্রচার করায় সকালের সংবাদের সম্পাদককে মামলার হুমকি।

নিজস্ব প্রতিবেদক; খিলগাঁও মাদক ও চাঁদাবাজ সম্রাট হিসেবে পরিচিত নুর মোহাম্মদের অপকর্মের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় সকালের সংবাদের সম্পাদক হাফিজুর রহমান শফিককে মুঠোফোনে মামলার হুমকি দেন নুর মোহাম্মদ।

খিলগাঁওয়ের শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদের বিরুদ্ধে কিছুদিন আগে একটি মাদকদ্রব্য আইনে মামলা হয়। সুত্র জানায়, খিলগাঁও থানা পুলিশ তাকে বিপুল সংখ্যক ইয়াবা ও একটি জিপ সহ গ্রেফতার করে। নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে খিলগাঁও থানা নুর মোহাম্মদের বৈঠকখানা হিসেবে ব্যাবহারিত হতো সেই সর্ম্পকের খাতিরে রাতভর নাটকের পর তাকে অল্প পরিমাণ মাদক সহ গ্রেফতার দেখানো হয় পরে চালান দেওয়া হয় তার অবৈধ অর্থের জোরে অল্প সময়ের মধ্যে জামিনে বেরিয়ে আসেন তিনি।

এই চাঁদাবাজ মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগ ও মালার প্রেক্ষাপটে সম্প্রতি গোয়েন্দা সংস্থার অনুসন্ধানে খিলগাঁও এলাকায় নুর মোহাম্মদের সকল অপকর্মের অনুসন্ধানী প্রতিবেদন সংগ্রহ করেন। সেই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে অপরাধ অনুসন্ধানী জনপ্রিয় অনলাইন সকালের সংবাদ গত ৯ নভেম্বর একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে সেটি প্রকাশের পরে ১০ নভেম্বর ৪.২২ টায় সকালের সংবাদের সম্পাদক হাফিজুর রহমান শফিককে মুঠোফোনে কল করে বলেন তার বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ কেনো প্রকাশ করা হয়েছে এসময় তিনি মামলা করারও হুমকি দেন নুর মোহাম্মদ।

উল্লেখ্য নুর মোহাম্মদেের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করলে হয় মামলা অথবা হামলা স্বীকার হন  সাংবাদিক। ইতিপূর্বে অনেক সাংবাদিক তার মামলা, হামলা স্বীকার হয়েছেন। তার সকল অপকর্মের সহোযোগী ডিএমপির সাবেক একজন এসি। সেই এসির সহায়তায় তিনি দাপট দেখিয়ে বেড়ায় বলে জানা গেছে।

তার সকল অপকর্মের অনুসন্ধান করতে গিয়ে জানা গেছে, রাজনীতির পদ পদবীকে সাইনবোর্ড হিসেবে ব্যবহার করে মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজি ও থানা পুলিশকে টাকার বিনিময়ে ব্যবহার করে রিক্সা চালকের ছেলে নুর মোহাম্মদ গড়েছেন অঢেল অবৈধ অর্থ-সম্পদের পাহার।

তার সকল অপকর্মের অনুসন্ধান করতে গিয়ে জানা গেছে, মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজি ও রাজনীতির পদ পদবীকে সাইনবোর্ড হিসেবে ব্যবহার ও থানা পুলিশকে টাকার বিনিময়ে ব্যবহার করে রিক্সা চালকের ছেলে হয়েও গড়েছেন অঢেল অর্থ-সম্পদের পাহার। থানা পুলিশকে অবৈধ অর্থের দাপটের পরোয়া করেননা তিনি। এমন হাজারো অভিযোগের পাহার তার মাথায় নিয়েও সরকারের শুদ্ধ অভিযানের ফাঁক গলিয়ে মাদক ব্যবসার খিলগাঁও সম্রাট নুর মোহাম্মদ রেয়ছেন বহাল তবিয়তে।

খিলগাঁও জুড়ে নুর মোহাম্মদের এমন বেপরোয়া কর্মকাণ্ডের পরও ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকায় এলাকাবাসী হতবাক।

আপনার মতামত লিখুন :